হরিপুরে কৃত্রিম সংকটের অজুহাতে বাড়ছে টি এস পি সারের দাম

0
157

হরিপুরের বাজার ঘুরে দেখা গেছে, প্রতি বস্তা ট্রিপল সুপার ফসফেট (টিএসপি তিউনেসিয়া) ১ হাজার ৪০০ থেকে ১ হাজার ৪৫০ টাকা, ট্রিপল সুপার ফসফেট (টিএসপি মরক্কো) ১ হাজার ১২০ টাকা, বাংলা ড্যাপ ১২০০ থেকে ১২৫০ টাকা, জগৎ বিখ্যাত ড্যাপ ১ হাজার থেকে ১ হাজার ২০ টাকা, অষ্টোলিয়া ড্যাপ ১ হাজার ১শ টাকা থেকে ১ হাজার ১৫০ টাকা,

জানা গেছে, প্রতি মৌসুমে সরকার বিভিন্ন প্রকার রাসায়নিক সারের ওপর ভর্তুকি দেয়। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন ডিলার বলেন, আমদানিকারকদের কাছে আমরা জিম্মি। সার দেয়ার সময় নানা রকম টালবাহানা করে। দাম বেশি নিলেও আমাদের কিছু করার থাকে না।

কৃষকদের অভিযোগ, কিছু অসাধু ব্যবসায়ী সার মজুদ করে কৃত্রিম সংকট দেখিয়ে অধিক মুনাফা লাভের জন্য চড়া দামে বিক্রি করছেন।

আমগাঁও ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের কৃষক আলম জানান, সরকারের বেঁধে দেয়া ডিএপি সারের মূল্য ৮০০ টাকা ঘোষণা করা হলেও ৮০০ থেকে ৮৫০ টাকায় কিনতে হয়েছে। ডিলাররা টি এস পি সারের কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে দাম বেশি রাখছেন।

হরিপুর উপজেলা কৃষি অফিসার নইমুল হুদা সরকার জানান, ডিএপি সারের সংকট নেই। টি এস পি সারের সরবরাহ কম।
টিএসপি সারের দাম বেশির ব্যপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, কেউ যদি দাম বেশি নেয় তাহলে আপনারা ক্যাশ মেমোসহ ধরে খবর দিলে আমরা আইনানুগ ব্যবস্থা নিব। হরিপুরে রবি মৌসুমে আবাদের পরিমাণ ২২ হাজার ৬৩০ হেক্টর

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে