সিল্কের মাস্ক করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাবে!

0
138

করোনাভাইরাস ঠেকানোর সেরা অস্ত্র মাস্ক। আবার বাতাসে ভর করা সংক্রমণের গতি রুখতেও মাস্কই সবচেয়ে উপযোগী। করোনা সংক্রমণের উৎস চিনের উহান শহর থেকে শুরু করে ইতালি ও নিউইয়র্ক থেকে পাওয়া তথ্য নিয়ে সমীক্ষায় গবেষকরা বলছেন, হাওয়ায় ভেসে বেড়ানো বায়ুকণায় ভর করে থাকা জীবাণু নিঃশ্বাসের সঙ্গে শরীরে প্রবেশ রুখে দেয় মাস্ক। সামাজিক দূরত্ব বিধি, হাত ধোয়া, সরাসরি স্পর্শ এড়ানো, কোয়ারেন্টাইন ও আইসোলেশন প্রক্রিয়া কার্যকর হলেও বায়ুবাহিত সংক্রমণ রোধে ব্যর্থ। এই বিপদ থেকে বাঁচাতে পারে একমাত্র মাস্ক।

আমরা করোনাকালে সুরক্ষিত থাকার জন্য ফেস মাস্ক ব্যবহার করছি। এন৯৫, সার্জিক্যাল মাস্ক, কটন মাস্ক, প্রিন্টেড মাস্ক থেকে ডিজাইনার মাস্ক- হরেক রকমের মাস্ক বাজারে ছেয়ে গিয়েছে। এতে কি কোনো সমাধান হচ্ছে। তবে সবার কাছে প্রশ্ন সবচেয়ে বেশি কার্যকরি মাস্ক কোনটি। প্রশ্নের উত্তরে অনেকেই এন৯৫ মাস্কের কথা বলবেন নিশ্চয়ই। তার থেকে কোনও অংশে কম যায় না সিল্কের মাস্ক। এমনটাই দাবি করছেন মার্কিন গবেষকরা।

আমেরিকার সিনসিনাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা বিস্তর গবেষণার পরই এমনটা জানাচ্ছেন। তাদের দাবি, শুঁয়াপোকার কল্যাণেই সিল্কের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি। বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োলজি বিভাগের সহকারি অধ্যাপক প্যাট্রিক গুয়েরা জানাচ্ছেন, সিল্কের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিমাইক্রোবায়াল, অ্যান্টিব্যাক্টিরিয়াল এবং অ্যান্টিভাইরাল উপাদান মজুদ রয়েছে। আর এর নেপথ্যের কারিগর শুঁয়োপোকা। হ্যাঁ! ঠিকই পড়ছেন। শুঁয়াপোকার কল্যাণেই সিল্কে এত গুণ। কারণ, শুঁয়াপোকারা তুঁত পাতা খেতে ভালবাসে। আর তাতে প্রচুর পরিমাণে তামা থাকে। তামার সৌজন্যেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে।

মার্কিন গবেষকরা সূতি এবং ফাইবার কাপড়ও পরীক্ষা করে দেখেছেন। কিন্তু একমাত্র সিল্কের মধ্যেই এমন উপাদান পেয়েছেন যা এন৯৫ মাস্কের মতো ক্ষতিকারক ভাইরাসকে প্রতিহত করতে পারে। এর পাশাপাশি আরো সুবিধা পাওয়া যাচ্ছে সিল্কের নরম টেক্সচার। যার ফলে সিল্কের মাস্ক পরা খুবই আরামদায়ক। আর এতে নিশ্বাস নেওয়ারও কোনও সমস্যা নেই। করোনাকালে মাস্কের চাহিদা ক্রমাগত বাড়ছে। সকলের পক্ষে এন৯৫ মাস্ক ব্যবহার করা সম্ভব নয়। অনেকে ক্ষেত্রে আবার এই মাস্ক বেশ কষ্টকর। সেই ক্ষেত্রে করোনাভাইরাসকে ঠেকানোর একমাত্র সমাধান হতে পারে সিল্কের মাস্ক।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে