রাণীশংকৈলে ডোবা থেকে মা, মেয়ে ও ছেলের লাশ উদ্ধার

0
193

রাণীশংকৈল উপজেলার ধর্মগড় ইউনিয়নের শিয়ালডাঙ্গি গ্রামের একটি পুকুর থেকে ১৫ অক্টোবর
ভোর ৬ টার দিকে একই পরিবারের মা,মেয়ে ও ছেলে -৩ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মৃতরা হলেন- আরিদা বেগম( ৩২), আঁখি আকতার(১০) ও আরাফাত(৪)।
.
সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, উপজেলার ধর্মগড়- শিয়ালডাঙ্গি গ্রামের কৃষক ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ি আকবর
আলি প্রতিদিনের মতো গত ১৪ অক্টোবর রাতে খেয়ে দেয়ে তার স্ত্রী ও ছেলে মেয়েকে নিয়ে ঘরে দুটি বিছানায়
ঘুমিয়ে পড়েন। ভোর ৫ টার দিকে তার বাবা সিরাজুল গোয়াল ঘরে গরু বের করার সময় তার ঘুম ভেঙে যায়।
.
এ সময় আকবর দেখে বিছানায় পাশে তার স্ত্রী নেই।পাশের বিছানায় মেয়েটি ও ছেলেটিও নেই।আকবর আরো জানায় সাংসারিক সংকট নিয়ে ঝগড়া করে এর আগেও তার স্ত্রী একবার গলায় ফাঁস দিতে গিয়েছিল।সে ভোর সাড়ে ৫টার দিকে ব্যস্ত হয়ে সাইকেল নিয়ে তাদেরকে খুঁজতে বের হয়।
.
আশেপাশে এবং পাশের ভরনিয়া বাজারে তার শ্বশুরবাড়িতে সে তাদের না পেয়ে বাড়ি ফেরার পথেওই পুকুর পাড় থেকে কুলি বাবুল সর্দারের ফোন পায়। বাবুল ফোনে আকবরকে ঐ পুকুরে তার স্ত্রী, মেয়ে ও ছেলের লাশ ভাসছে বলে জানায়।পরে,বাবুল,তোফা ও আকবরের বাবা সিরাজুল মিলে লাশগুলো পুকুর থেকেবাড়িতে নিয়ে আসে।এ সময় ইউপি সদস্য কাবুল ফোনে থানায় খবর দিলে প্রথমে এসআই সফিউল সঙ্গীয় পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে আসেন।
.
পরে সিনিয়র পুলিশসুপার তোফাজ্জল হোসেন, ওসি এসএম জাহিদ ইকবাল ও ওসি তদন্ত আব্দুল লতিফ শেখ ঘটনাস্থলপরিদর্শন করেন।এ তিন মৃত্যু নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যেরসৃষ্টি হয়েছে।
.
থানার ওসি এ ব্যাপারে বলেন, এ মৃত্যুরকারন সম্পর্কে এখন কিছু বলা যাচ্ছেনা, লাশ ময়নাতদন্ত সাপেক্ষে এর সঠিক কারন জানা যাবে। ধর্মগড় ইউপি চেয়ারম্যান সফিকুল ইসলাম মুকুল এ মৃত্যুকে রহস্যজনক মনে করেন। এবং এর সঙ্গে কেউ জড়িতথাকলে তদন্ত সাপেক্ষে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে