ডা.ফিরোজ আলমের নিজস্ব উদ্যোগে করোনাকালীন সময় হতে মাস্ক বিতরণ অব্যাহত।

0
186

নিজে মাস্ক পরুন অপরকে মাস্ক পরতে উৎসাহিত করুন নিজে সচেতন থাকুন অন্যকে সচেতনতায় উদ্বুদ্ধ করুন এ স্লোগানকে সামনে রেখে,করোনা কালীন সময় হতে এযাবৎ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স আসা রোগী সহ বিভিন্ন মানুষদের মাঝে দুই হাজারের অধিক মাস্ক বিতরণ করেছেন রাণীশংকৈল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা.ফিরোজ আলম।
২০১২ সালে মেডিকেল অফিসার হিসেবে রানীশংকৈল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যোগদান করেন, তার সততা ও কর্মদক্ষতায় ২০১৫ সালে আবাসিক মেডিকেল অফিসার পদে পদোন্নতি লাভ করেন।
সরেজমিনে গিয়ে কথা বলে জানা যায়, ডাক্তার ফিরোজ আলম একজন মানব প্রেমী মানুষ এছাড়াও তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম শত বার্ষিকীতে দিনব্যাপী ফ্রি চিকিৎসা সেবা ক্যাম্পেইন এর মাধ্যমে অনেক সুনাম অর্জন করেছিলেন।

তিনি সবথেকে করোনা মহামারী সংকট ময় কালে রাণীশংকৈল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রেখেছেন বলে জানা যায়। করোনা রোগীদের সার্বক্ষণিক খেয়াল রাখা সহ সাহস জোগানো থেকে শুরু করে বিভিন্ন আঙ্গিকে চিকিৎসা সেবা প্রদান করে গেছেন।

ডা.ফিরোজ আলম বলেন, করোনা সচেতনতা জনসাধারণের বৃদ্ধিতে রোগী সহ যারা মাস্ক পরিধান করে না তাদের মাস্ক পরিধানে উদ্বুদ্ধকরণ সহ মাক্স পরা অব্যাহত রাখতে আমি নিজ উদ্যোগে করোনা সচেতনতা বৃদ্ধি ও সংক্রমণ রোধে উৎসাহ প্রদানের লক্ষ্যে মাস্ক বিতরণ অব্যাহত রেখেছি।

মাক্স বিতরণ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে তিনি নিশ্চিত করেছেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে