ট্রাম্পকে গ্রেপ্তারের চেষ্টায় ইরান

0
199

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পকে গ্রেপ্তারে আন্তর্জাতিক পুলিশ সংস্থা ইন্টারপোলের স্মরণাপন্ন হয়েছে তেহরান। ইরানের অভিযোগ, দেশটির সর্বোচ্চ সামরিক কর্মকর্তা কাশেম সোলাইমানিকে হত্যায় সরাসরি জড়িত ছিলেন ট্রাম্প। তাই ট্রাম্পসহ মোট ৪৮ জন মার্কিন কর্মকর্তাকে বিচারের মুখোমুখি করতে চায় ইরান সরাকার।

আন্তর্জাতিক সংবাদসংস্থা আলজাজিরার খবরে বলা হয়, বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতা ছাড়ার মাত্র দুই সপ্তাহ আগে তাঁর বিরুদ্ধে ইন্টারপোলের মাধ্যমে ‘রেড নোটিশ’ জারি করেছে ইরান। কাশেম সোলাইমানিকে হত্যার অভিযোগে ট্রাম্পকে গ্রেপ্তারসহ তাঁর বিরুদ্ধে নিরপেক্ষ তদন্তের সুপারিশ করেছে ইরান সরকার। মঙ্গলবার দেশটির বিচারিক মুখপাত্র গোলাম হোসেইন ইসমাইলি সাংবাদিকদের এসব কথা জানান।

২০২০ সালের ৩ জানুয়ারি ইরাকের বাগদাদে ড্রোন হামলায় নিহত হয় ইরানের রেভুলিউশনারি গার্ড কর্পসের শীর্ষ কর্মকর্তা ও দেশের বাইরের সকল সামরিক অভিযানের নেতৃত্বে থাকা জেনারেল কাশেম সোলাইমানি। ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলি খামেনির পর তাকেই সবচেয়ে ক্ষমতাধর ব্যক্তি গণ্য করা হতো। তাই এ হত্যাকাণ্ডের নির্দেশদাতা ও হামলায় সঙ্গে সংশ্লিষ্ট প্রত্যেককে আইনের আওতায় আনার হুঁশিয়ারি দিয়েছে ইরান।

জাতিসংঘের আইন অনুযায়ী এই হামলারকে বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড দাবি করে ইন্টারপোলের মাধ্যমে ট্রাম্পকে শাস্তির আওতায় আনার চেষ্টা চালাচ্ছে ইরান। যদিও এর আগে গত জুনে ‘সন্ত্রাসী তৎপরতার’ অভিযোগ তুলে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে মামলা করেছিলেন ইরানের আইনজীবী আলি আলকাশিমের। যদিও সেই আবেদন নাকচ করে দেয় ইন্টারপোল। তবে এবার হোয়াইট হাউজ থেকে বিদায়ের বেলাকেই ট্রাম্পকে ধরাশায়ী করার মোক্ষম সময় মনে করছে ইরান। কেননা প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্বের মেয়দ শেষ হওয়ায় ২০ জানুয়ারির পর আর রাজনৈতিক ক্ষমতা ব্যবহার করতে পারবেন না ডনাল্ড ট্রাম্প।

দৈনিক জাগরণ

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে